শুক্রবার সকালে বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার বিজরুল এলাকা থেকে ককটেল ও জিহাদী বই সহ জামায়াত শিবিরের ১৬ জন জনকে আটক করেছে পুলিশ।এদের মধ্যে জামায়াত উপজেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত আমির আনোয়ারুল হক(৬০) সহ জামায়াত শিবিরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মী রয়েছে।এসময় কয়েকটি মটরসাইকেলও আটক করা হয়।গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলো- একরামুল রেজা(৫৫),আব্দুল হামিদ(৫০),আব্দুল মালেক(৫৪),মঞ্জুরুল ইসলাম(৩৮),ইউনুছআলী(৫৬),আনোয়ারহোসেন(৪০),মনিরুলইসলাম(২০),আব্দুলআলিম(৩০),মোমিন(২০),সুলতান আহম্মেদ(৪৫),সাইফুল ইসলাম(৪০),গোলাম রব্বানী(৫৫),বোরহান উদ্দিন(২২) মোস্তফা(২২), ও আব্দুল হামিদ(৫৫)।

পুলিশ জানায়, উপজেলার বিজরুল এলাকার মিয়াপাড়ায় জামায়াত নেতা আনোয়ারুলের বাড়িতে গোপন বৈঠক চলছিলো। নাশকতার পরিকল্পনার জন্য জামায়াত শিবিরের ক্যাডাররা ওই বৈঠক করছিলো। গোপন সুত্রে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়।এসময় পুলিশের অভিযানে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা জামায়াতের ভারপ্রাপ্ত আমির সহ জামায়াত ও শিবিরের ১৬ জনকে সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয়। বৈঠকস্থল থেকে ৫টি ককটেল ও বেশ কিছু জিহাদী বই উদ্ধার করা হয়।এছাড়া ৫টি মটরসাইকেলও সেখান থেকে আটক করা হয়। নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ জানিয়েছে, গ্রেফতারকৃতরা সেখানে নাশকতার পরিকল্পনার জন্য বৈঠক করছিলো। গ্রেফতারের পর তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।