জুভেন্টাসের হয়ে প্রথম তিন ম্যাচে গোল পাননি। সমালোচকরা কথা বলতে শুরু করেছিলনে কার্যকরিতা নিয়ে। কিন্তু না, সমালোচকদের মুখে কুলুপ এঁটে দিয়ে পর্তুগিজ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো প্রত্যাবর্তন করেছেন রাজার মতোই। জোড়া গোল দিয়েইজুভেন্টাসের হয়ে গোলের খাতা খুললেন তিনি। ইতালিয়ান লীগ ‘সিরি আ’তে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস ২-১ গোলে হারিয়েছে সাসুওলোকে। জোড়া গোল করেন রিয়াল মাদ্রিদ থেকে এ মৌসুমে জুভেন্টাসে আসা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

জোড়া গোলে শুধু রাজকীয় প্রত্যাবর্তন করেননি, রোনালদো আজ নাম লিখিয়েছেন অনন্য এক রেকর্ডের খাতায়। পাঁচবারের ব্যালড ডি অর জয়ী রোনালদো ইউরোপিয়ান শীর্ষ লীগে মালিক হয়েছেন ৪০০ গোলের। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ৩১১, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ৮৪, স্পোর্টিংয়ের হয়ে ৩ এবং সর্বশেষ জুভেন্টাসের হয়ে ২ গোল করে রোনালদো এ অনন্য মাইলফলক অর্জন করেন। ইউরোপিয়ান শীর্ষ লীগে ইতিহাসের পঞ্চম খেলোয়াড় হিসেবে রোনালদো ৪০০ গোলের রেকর্ড গড়েন।

আজ রোববার বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় জুভেন্টাস-সাসুওলো ম্যাচটি শুরু হয়। প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। বিরতির পর ফিরেই যেন শুরু হয় রোনালদো ম্যাজিক।

ম্যাচের ৫০ মিনিটের মাথায় জুভেন্টাসকে এগিয়ে দেন রোনালদো। সঙ্গে জুভেন্টাসের হয়ে প্রথম গোলের সূচনা করেন সিআরসেভেন। জুভেন্টাস কর্নার নিলে ডি-বক্স থেকে বাইসাইকেল শটে জালে জড়ানোর চেষ্টা করছিলেন লিওনার্দো বোনুচ্ছি, কিন্তু সাসুওলোর রক্ষণভাগের খেলোয়াড় বোনুচ্ছির শট ক্লিয়ার করতে গেলে বল বারে লেগে ফেরত আসে। তখনই গোলবারের কাছেই দাঁড়িয়ে থাকা রোনালদো আলতো শটে বল জড়ালেন জালে।

দ্বিতীয় গোলটি আরও আসাধারণ। মাঝমাঠ থেকে এমেরি ক্যানের পাস থেকে রোনালদো বল পান সাসুওলোর ডি বক্সের সামনে। আর থামায় কে পর্তুগিজ তারকাকে! বল নিয়ে ডি বক্সে ঢুকে কোনাকোনি শটে সারাসরি বল পাঠান সাসুওলোর জালে। দ্বিতীয়বারের মতো গোল দিয়ে উৎসবে ভসান জুভেন্টাস সমর্থকদের।

নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জুভেন্টাস ২-০ গোলেই এগিয়ে ছিল। ৯১ মিনিটের মাথায় সাসুওলোর স্ট্রাইকার খোউমা ববকার গোল দিয়ে ব্যবধান কমান। শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জুভেন্টাস। অপেক্ষাকৃত দুর্বল সাসুওলোর বিপক্ষে জুভেন্টাসের জয় অনুমিতই ছিল, কিন্তু রোনালদোর জন্য ছিল আরও বিশেষ কিছু। এ ম্যাচেই যে পর্তুগিজ তারকার হয়েছে রাজকীয় প্রত্যাবর্তন।