আশ্রয় শিবির থেকে পালিয়ে গাজীপুরে পাসপোর্ট করতে গিয়ে রবিবার বিকেলে আটক হয়েছে এক রোহিঙ্গা নারী। তার নাম ফারিয়া মীম (২৭)। মিয়ানমারের নাগরিক ফারিয়া মীম কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকে। তার বাবার নাম মঞ্জু শেখ ও মাতার নাম পারভীন বেগম।

গাজীপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের উপ-সহকারী পরিচালক মোঃ কবির হোসেন জানান, গাজীপুর অফিসে এসে রবিবার পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেন ফারিয়া মীম। আবেদনপত্রে তিনি বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা হিসেবে গাজীপুর জেলার শ্রীপুরের জয়নারায়ণপুর গ্রামের নাম উল্লেখ করেন। যাছাই বাছাইয়ের এক পর্যায়ে তার কথাবার্তা ও আচরণে সন্দেহ হলে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এসময় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে নিজেকে একজন রোহিঙ্গা বলে দাবী করে। এছাড়াও সে কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ছিল বলে স্বীকার করে। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। পরে খবর পেয়ে জিএমপি’র গাজীপুর সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ফারিয়া মীমকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

জিএমপি’র গাজীপুর সদর থানার ওসি সমীর চন্দ্র সূত্রধর জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ফারিয়া মীম নিজেকে মিয়ানমারের নাগরিক এবং কক্সবাজারের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ছিল বলে স্বীকার করেছে। ওই ক্যাম্প থেকে দালালের মাধ্যমে পালিয়ে গাজীপুরে গিয়ে মিথ্যা ঠিকানা ব্যবহার করে পাসপোর্টের জন্য আবেদন করে সে। তাকে ওই ক্যাম্পে রাতে ফেরত পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।