একাত্তর জার্নালে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে ‘চরিত্রহীন’ বলে ‘আপত্তিকর’ ও ‘ব্যক্তিগত আক্রমণাত্মক’ মন্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানানোর পাশাপাশি ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিসহ সাংবাদিক সমাজের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান বাংলাদেশ অনলাইন অ্যাক্টিভিষ্ট ফোরাম (বোয়াফ)।

বুধবার (১৭ অক্টোবর) সংগঠনের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রাকিবের স্বাক্ষরিত এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে এ আহ্বান জানানো হয়। সংগঠনের সভাপতি কবীর চৌধুরী তন্ময় প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলেন, ওয়ান-ইলেভেনের অন্যতম কুশীলব ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন রাজনীতির নামে স্বাধীনতাবিরোধীদের আবারও রাতের অন্ধকারে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করতে ষড়যন্ত্র করছে। তাই সত্যের মুখোমুখির প্রশ্নের উত্তরে একজন টিভি টকশোর সম্মানিত আলোচক মাসুদা ভাট্টিসহ গোটা সাংবাদিক সমাজের বিরুদ্ধে ‘আপত্তিকর’ ও ‘ব্যক্তিগত আক্রমন’ করে মন্তব্য করার ঔদ্বত্য দেখিয়েছে-যা ‘শিষ্টাচার বহির্ভুত’। আমরা তার এই ধরনের মন্তব্যের তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা প্রকাশ করছি এবং সেই সাথে তার মন্তব্য প্রত্যাহার করে মাসুদা ভাট্টিসহ সাংবাদিক সমাজের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান করছি।

টিভি টকশো’র নীতিনির্ধারক ও সাংবাদিক সমাজের প্রতি ইঙ্গিত করে বোয়াফ সভাপতি আরও বলেন, এই মইনুল হোসেন ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে আরেকটি টকশোতে ‘বঙ্গবন্ধু মৃত্যু হয়েছে’ বলে ইতিহাসের বর্বরতম হত্যাকান্ডের প্রেক্ষাপট ভিন্ন পথে নিয়ে যেতে ষড়যন্ত্র করেছিল। টিভি টকশো ও গণমাধ্যমে এই ধরনের ব্যক্তিদের কিভাবে মুল্যায়ন করা উচিত-এটিও ভেবে দেখার সময় হয়েছে বলে আমি মনে করছি।