কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল শুনানি শেষে মন্তব্য করে বলেছেন, প্রার্থিতা ফিরিয়ে দিলেও ধন্যবাদ। না দিলেও ধন্যবাদ।শনিবার (৮ ডিসেম্বর) তার আপিল আবেদন স্থগিত করলে সাংবাদিকদের কাছে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এমন মন্তব্য করেন।কাদের সিদ্দিকী টাঙ্গাইল-৪ ও ৮ আসন থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। রিটার্নিং কর্মকর্তারা ঋণ খেলাপের কারণ দেখিয়ে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন।কাদের সিদ্দিকী বলেন, আমার আপিল গ্রহণ হলেও ধন্যবাদ। আপিল যদি না মঞ্জুর হয় এবং নির্বাচন যদি সঠিকভাবে হয়, সেজন্যও ধন্যবাদ।

তিনি বলেন, এবারের নির্বাচন অন্য নির্বাচনের চেয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। জনগণ ভোট দিতে চায়। জনগণ যাতে ভালোভাবে ভোট দিতে পারে, নির্বাচন কমিশনকে সেই ব্যবস্থা করতে হবে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদাসহ অন্য কমিশনাররাও শুনানি করেন।এদিকে, নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেও লাভ হলো না বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আমান উল্লাহ আমানের। বৈধতা পেতে তার আবেদন শুনানি করে নামঞ্জুর করে দিয়েছে ইসি। আর আফরোজা আব্বাস বৈধতা চেয়ে প্রার্থিতা ফেরত পেয়েছেন।

নির্বাচন ভবনের ১১তলায় স্থাপিত অস্থায়ী এজলাসে শুনানি করে শনিবার (০৮ ডিসেম্বর) নির্বাচন কমিশন এমন সিদ্ধান্ত দেন।ঢাকা-২ আসনের (কেরানীগঞ্জ-কামরাঙ্গীরচর) প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন আমান উল্লাহ আমান। আর ঢাকা-৯ আসন (খিলগাঁও, সবুজবাগ) থেকে বিএনপির প্রার্থী হলেন মির্জা আব্বাসের সহধর্মিণী আফরোজা আব্বাস।গত ২ ডিসেম্বর আমান উল্লাহ আমান ও আফরোজা আব্বাসের মনোনয়নপত্র বাতিল করে দিয়েছিলেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।