টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশের পর ওয়ানডে সিরিজেও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২-১ ম্যাচ ব্যবধানে হারানোয় বাংলাদেশকে প্রশংসায় ভাসিয়েছিলেন কোচ স্টিভ রোডস। তবে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খুব একটা সহজ হবে না বলেই মনে করেন তিনি। এমনকি বিশ্বের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগসমূহের সেরা টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড়দের অনেকেই দলে থাকায় ক্যারিবীয়দের হারানো কঠিন হবে বলে জানিয়েছিলেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

গত জুলাইয়ে ফ্লোরিডায় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাঁদের ঘরের মাঠেই টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। সেখান থেকেই প্রেরণা খুঁজছেন রোডস। তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টির ব্যাপারে মাশরাফি যেমন বলেছিল, এটি ওয়েস্ট ইন্ডিজের সবচেয়ে শক্তিশালী ক্রিকেটীয় ফরম্যাট। তারা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন এবং তাঁদের হারানো কঠিন হবে। গত ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তাঁদের মাটিতে জয় পাওয়া আমাদের জন্য বিশেষ কিছু ছিল। একই দলের বিপক্ষে আগে জয় পেলে কিছুটা স্বস্তি পাওয়া যায়।ক্যারিবীয় খেলোয়াড়রা সবচেয়ে বেশি পরিচিত বিভিন্ন দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি লিগসমূহে দুর্দান্ত পারফরমেন্সের কারণে। এমনকি বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য এভিন লুইসের মতো খেলোয়াড়কে দলে এনেছে তারা। এই ব্যাপারে রোডস বলেন, ‘এখানে খেলতে আসা নতুন কিছু প্লেয়ার নিয়ে তৈরি ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল বেশ শক্ত প্রতিপক্ষ। এই ফরম্যাটে তারা খুবই ভালো খেলে। আমরা আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা দেব। ছেলেরা কিছু অসাধারণ পারফরমেন্স করে আমাকে সবসময়ই চমকে দেয়। আমরা ধারাবাহিকভাবে কিছু সিরিজে জয় পেয়েছি, সুতরাং এটি ভালো খবর বাংলাদেশের জন্য। টেস্ট সিরিজ এবং ওয়ানডে সিরিজে জয়ের পর স্বাভাবিকভাবেই জয়ের ছন্দে আছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি সিরিজেও এই ছন্দের ধারাবাহিকতা তারা ধরে রাখতে পারবে কি না, সেটিই এখন দেখার বিষয়।