মুক্তিপণের দাবীতে নেত্রকোণা হতে অপহরণের তিনদিন পর বৃহষ্পতিবার এক কিশোরীকে গাজীপুর থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা।

র‌্যাব-১’র স্পেশালাইজ কোম্পানী পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন জানান, গত ২১ জানুয়ারি দুপুরে নেত্রকোনার গ্রামের বাড়ি থেকে কিশোরী আকলিমাকে (১৫) অপহরণ করে দুর্বৃত্তরা। অপহরণের পরদিন মোবাইল ফোনে তার বাবার কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী করে হত্যার হুমকি দেয়। এদিকে তাকে না পেয়ে স্বজনরা বিভিন্নস্থানে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে ভিকটিমের পিতা জানতে পারে যে, অপহরণকারীরা তার মেয়েকে গাজীপুরের কোনাবাড়ীতে নিয়ে শারীরিক নির্যাতন করছে অপহরণকারীরা। এব্যাপারে র‌্যাব-১’র স্পেশালাইজ কোম্পানী পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডারের বরাবরে অপহৃতের পরিবার অভিযোগ দায়ের করেন। এরপ্রেক্ষিতে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে র‌্যাব সদস্যরা জানতে পারে অপহরণ কারীরা মুক্তিপণের টাকা নেয়ার জন্য অপহৃতকে নিয়ে অপহরণকারীরা গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকায় অবস্থান করছে। বৃহষ্পতিবার ভোরে পাচারের উদ্দেশ্যে অপহৃতকে কোনাবাড়ী বাসষ্ট্যান্ডে নিয়ে যায়। এ গোপন খবর পেয়ে র‌্যাব সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মূল অপহরণকারী নেত্রকোনা জেলার কমলাকান্দি থানার ভোড়া গ্রামের মোঃ শাজাহান (২৭) অপহৃত আকলিমাকে ফেলে রেখে কৌশলে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। পরে র‌্যাব সদস্যরা সেখান থেকে আকলিমাকে উদ্ধার করে।