ধানের ন্যায্য দাম থেকে বঞ্চিত করার প্রতিবাদে এবং উপযুক্ত মূল্য দিয়ে কৃষি ও কৃষকদের রক্ষার দাবি বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লব নামের এক সংগঠন।

শুক্রবার (১৭ মে) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দাঁড়িয়ে আয়োজিত সমাবেশ ও মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানান সংগঠনটি।সংগঠনের বক্তারা বলেন, কৃষকদের কান্না থামাও- ধানের ন্যায্য মূল্য দাও। তৃণমূল পর্যায়ে উৎপাদনকারী কৃষকরা এমনিতেই বঞ্চিত, শোষিত ও অসহায়। নানারূপ প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে কৃষি ও উৎপাদন ব্যবস্থা চালু রেখে দেশ ও জনগণের চাহিদা পূরণ করেছেন। অনেকে ধার দেনা করে ও বর্গা দিয়েও উৎপাদন খরচ পর্যন্ত মেটাতে পারছেন না। এতে দেনা শোধ করতে না পেরে মহা বিপন্ন হয়ে পড়েছে। অনেক জায়গায় কৃষক হতাশ হয়ে মারাত্মক দু:খে নিজের ধানের ক্ষেতে আগুন দিয়েও সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণে ব্যর্থ হয়েছে।

বক্তরা আরও বলেন, কৃষকের সংকট সমগ্র জনগণের সংকট, কৃষক বিপন্ন হলে কৃষি ও কৃষিব্যবস্থা বিপর্যস্ত হয়ে সমস্ত জনগণ ও দেশ মহাসংকটে পড়বে। তাই, ধানের মূল্য পতনের কারসাজি রোধ করে কৃষক ও উৎপাদন ব্যবস্থা রক্ষা করতে হবে। ধানের দাম কমে কৃষক বিপন্ন অথচ চালের দাম অনেক বেশী যা মধ্যবর্তী কারসাজি ও অব্যবস্থাপনা এবং জনবিরোধী অপরাজনীতির প্রমাণ করে।

ইনসানিয়াত বিপ্লবের নেতারা অবিলম্বে সরকারীভাবে কৃষকদের চাহিদামত ভালো দামে ধান কিনে ও প্রয়োজনে ভর্তুকি দিয়ে কৃষকদের সমস্যার সমাধান এবং মানবতাভিত্তিক কৃষিনীতি ও জনকল্যাণমূলক কৃষিব্যবস্থা গড়ে তোলার আবেদন জানান।বিশ্ব ইনসানিয়াত বিপ্লব সংগঠনের মানববন্ধনে শেখ রায়হান রাহবারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, এই সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা ইমাম হায়াত, আরেফ সারতাজ, আবু বকর চিস্তি, আহমেদ শাহ মোর্শেদ, আওয়াল কাদেরীসহ অনেকেই।