ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ মঙ্গলবার (৪ জুন) রাত ৯টার দিকে সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, বৃহস্পতিবার উদযাপিত হবে পবিত্র ঈদুল ফিতর। প্রতিমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্ত গণমাধ্যমে প্রকাশও হয় ঢালাওভাবে।

এরপর রাত ১১টার দিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহ সংবাদ সম্মেলনে আবার জানান, দেশের আকাশে মঙ্গলবার চাঁদ দেখা গেছে। তাই বুধবার সারা দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

এ সময় ধর্ম প্রতিমন্ত্রী জানান, মঙ্গলবার রাত ১০টার পর কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাট জেলার শতাধিক ব্যক্তি চাঁদ দেখেছেন বলে খবর আসে। বিষয়টি দায়িত্বের সাথে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন চাঁদ দেখা কমিটিকে বিষয়টি জানান। এছাড়াও লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। এরপর চাঁদ দেখা কমিটির সদস্যরা ফের বৈঠক করেন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক ও লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জানিয়েছেন, ১৬ জন ব্যক্তি চাঁদ দেখেছেন। শরিয়ত মোতাবেক যদি কমপক্ষে দুজন ইমানদার ব্যক্তি চাঁদ দেখার ঘোষণা দেন, তাহলে সেই ঘোষণা মেনে নেওয়া উচিত। কোনো ব্যক্তিগত স্বার্থে নয়, শরিয়ত মোতাবেক কোরআন ও হাদিস অনুযায়ী যা করা উচিত তাই ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।

কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন বলেন, যখনই টিভি চ্যানেলে খবর আসে যে বুধবার ঈদ হবে না, তখন থেকে ফোন আসা শুরু হয়। ভূরুঙ্গামারী, নাগেশ্বরী এবং ফুলবাড়ী উপজেলার লোকজন চাঁদ দেখার খবর জানিয়েছেন।