যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানদের আওয়ামী লীগে কোনো স্থান নেই বলে মন্তব্য করেছেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বরিশাল বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে গত পহেলা জুলাই সারা দেশে আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরুর দিনে ধানমন্ডিতে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছিলেন, ‘যাকে সদস্য করা হবে, সেই পরিবারের কেউ হয়ত সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে ছিল বা জামায়াতে ইসলাম করেছে বা যুদ্ধাপরাধীদের সঙ্গে যোগসূত্র ছিল। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পরে এ ধরনের বিষয় দেখার তো কোনো যৌক্তিকতা নেই। আমরা যাকে সদস্য করব তার ব্যাকগ্রাউন্ডটাই মূলত দেখব, সে আসলে কী।’

কাদেরের এই বক্তব্যের পর সারা দেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আবদুর রহমান আজ এ কথা বলেন। এর আগে আজ বৃহস্পতিবার সকালে ওবায়দুল কাদের নিজেও অবশ্য এ বিষয়ে পৃথক ব্যাখ্যা দিয়েছেন। যুদ্ধাপরাধীদের বিষয়ে দলের অবস্থান তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিকোণ থেকে বিএনপি বা জামায়াত যাই হোক না কেন তাদের কেউ দলে যোগ দিতে পারবে না। আওয়ামী লীগ যুদ্ধাপরাধীদের ব্যাপারে অত্যন্ত কঠোর।’