বর্তমান সরকারের আমলে শুধু গ্যাসের মূল্যই বাড়েনি, খুন, গুম, ধর্ষণ, রাহাজানি, চুরি, দুর্নীতি সবই বেড়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম। তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক বাজারে গ্যাসের মূল্য যখন নিম্নমুখী, পার্শ্ববর্তী দেশে যখন গ্যাসের দাম কমানো হলো, তখন বাংলাদেশে গ্যাসের দাম বাড়ালো সরকার। এরমাধ্যমে সরকারের গণবিরোধী চরিত্রই প্রকাশিত হয়েছে।

শুক্রবার (৫ জুলাই) বায়তুল মোকাররম দক্ষিণ গেটে আয়োজিত এক সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।এ সময় গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে ১৩ জুলাই দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন মুফতি ফয়জুল করীম।

ক্রসফায়ার-এর সমালোচনা করে সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেন, নয়ন বন্ডকে ক্রসফায়ারে দিয়ে সরকার হাজারও সত্যকে গোপন করেছে। ক্রসফায়ার বা বিচার-বহির্ভূত হত্যা ইসলাম সমর্থন করে না।

ফয়জুল করীম বলেন,এই সরকারের আমলে কৃষকরা ধানের ন্যায্য মুল্য পাচ্ছে না। অন্যদিকে কৃষিপণ্যের দাম অনেক বেশি। রোগীরা সেবা পাচ্ছে না, ছাত্ররা তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত, সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার হচ্ছে। রাষ্ট্রের সব জায়গায় অব্যবস্থাপনা, জনগণ নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত। সব সুযোগই যেন সরকার দলীয় লোকজনের জন্য। এভাবে একটি রাষ্ট্র চলতে পারে না। অর্থপাচারের দিকে থেকে বাংলাদেশ দ্বিতীয় অবস্থানে। দেশের ৫ লাখ কোটি টাকা পাচার করেছে সরকার দলীয় লোকেরা। সরকারের লোকজন আঙুল ফুলে কলাগাছ নয়, বটগাছে পরিণত হয়েছে। সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয় বলে জনগণের জন্য কোনও দরদ নেই।

সংগঠনের ঢাকা মহানগর উত্তর সভাপতি মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদের সভাপতিত্বে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন দলের রাজনৈতিক উপদেষ্টা আশরাফ আলী আকন, যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবুর রহমান, কেএম আতিকুর রহমান, মাওলানা এবিএম জাকারিয়া, মুফতি শেখ নূরউন নাবী, মাওলান এইচএম সাইফুল ইসলাম। সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, মাওলানা আহমদ আব্দুল কাইয়ূম প্রমুখ।