প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলা মামলায় দ-প্রাপ্ত বিএনপি নেতাদের বাড়ি গিয়ে স্বজনদের সান্ত¡না দিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাস। তিনি শনিবার (৬ জুলাই) সকাল থেকে পাবনার ঈশ্বরদীর বিভিন্ন এলাকায় দন্ডিত নেতাদের বাড়িতে যান এবং তাদের স্বজনদের আইনি সহায়তার আশ্বাস দেন।

এ সময় শিমুল বিশ্বাস বলেন, বর্তমানে দেশে আইনের শাসন নেই, ন্যায়বিচার নেই, মানবাধিকার নেই। দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। কোথাও কারও নিরাপত্তা নেই। তিনি বলেন, পাবনার আদালতের রায়ে সরকারের দানবীয় রূপের আরও একবার বহিঃপ্রকাশ ঘটলো। দেশের মানুষকে সব অপকর্মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে, প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৪ সালে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় গত বুধবার (৩ জুলাই) ৯ জনের মৃত্যু দন্ডের রায় ঘোষণা করেন পাবনার একটি আদালত। এ ছাড়া ২৫ জনকে যাবজ্জীবন ও ১৩ জনকে ১০ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড দেওয়া হয়। একইসঙ্গে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামিদের পাঁচ লাখ টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে তিন বছর করে কারাদন্ড, যাবজ্জীবন কারাদন্ডপ্রাপ্ত আসামিদের তিন লাখ টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও দুই বছর করে কারাদন্ড এবং ১০ বছর করে কারাদন্ডপ্রাপ্তদের এক লাখ টাকা করে জরিমানা ও অনাদায়ে আরও এক বছর করে কারাদন্ড দেওয়া হয়।