পাবনা সদর উপজেলার বলরামপুর গ্রামে মৃত্যু বার্ষিকীর মিলাদ মাহফিলের তাবারক খেয়ে সুখী খাতুন(১৪) নামের এক স্কুল ছাত্রী মারা গেছেন এবং শিশুসহ ৪০ জন নারী পুরুষ গুরুত্বর ভাবে অসুস্থ্য হয়ে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। রোববার সকালে মৃত্যুবরণকারী সুখী সদর উপজেলার দোগাছী ইউনিয়নের বলরামপুর গ্রামের সেলিম শেখের মেয়ে ও শহরের আহমেদ রফিক উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তিকৃতরা হলেন, অনিষা(১২), লামিয়া(৭), দীপক সাহা(৫৯), রেশমী(৩০), লামিয়া(৫), রিপন(৪২), স্বপন(২৩), শারমিন(১৯), মকছেদ(২০), মানু(১৭), জিসান(৩০), মাহিন(১৩), আয়েশা(২৫), মেহরাব(১১), রোহান(৯), রাত্রি(১২), সাবিনা(৩০), রোহানা(৩৮), স্বপন(৪০), ছিয়াম(১০), ইয়াসমিন(২০), কাকলী(১৩), সুফিয়া(৪৫), লতা(২৫), সন্তু(২৮), মুসাব্বির(১৪), কামরুন্নাহার(৬০), সাজু(১৬), সুরুজ(৭০), মোমিন(৩৪), রোহান(৬) সহ ৪০ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
অসুস্থ্য রিপন হোসেন জানান, শুক্রবার বিকেলে বলরামপুর গ্রামের তার বড় চাচা ঈমান আলীর মৃত্যু বার্ষিকীর মিলাদের তাবারক খাওয়ার পরপরই তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন। শনিবার ও রোববার সকালে তারা হাসপাতালে ভর্তি হন।

হাসপাতালের চিকিৎসক ডা: হাবিবুল ইসলাম জানান, খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারনেই এরা অসুস্থ হয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) ওবাইদুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শিশুটির মৃত্যুর খবর পেয়েছি। পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।