ট্রাফিক পুলিশের কার্যক্রমকে দুর্নীতিমুক্ত ও আরো বেশি গতিশীল করতে এবং চালক-মালিক ও সাধারণ মানুষের ভোগান্তি কমাতে গাজীপুরের শ্রীপুরে ই-ট্রাফিক প্রসিকিউশন সেবার উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে গাজীপুরের মাওনা চৌরাস্তায় POS machine এর মাধ্যমে এই সেবার উদ্বোধন করেন ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি মোঃ হাবিবুর রহমান।

এ উপলক্ষে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মাওনা চৌরাস্তা উড়াল সেতুর নিচে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠাণে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সাংসদ মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন সবুজ, গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার। গাজীপুর জেলা পুলিশ আয়োজিত এ অনুষ্ঠাণে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম সবুর সঞ্চালনা করেন।

ডিআইজি হাবিবুর রহমান বলেন, দূর-দূরান্তে যানবাহন চলাচল করতে গিয়ে চালকদের ট্রাফিক আইন মানতে বাধ্য করবে এই সেবা। ট্রাফিক আইন অমান্যকারীদের তাৎক্ষণিক জরিমানা-মামলাসহ জরিমানার টাকা আদায় করতে পারবে পুলিশ। এ ক্ষেত্রে চালক ও মালিকরাও অতি সহজে ইউ-ক্যাশ সেবার মাধ্যমে ধার্যকৃত জরিমানা পরিশোধ করতে পারবেন।

তিনি আরো বলেন, সাধারণ মানুষের শ্রমশক্তির অপচয় রোধ, ট্রাফিক আইনের মামলায় চালক-মালিকদের হয়রানি ও দুর্ভোগ কমানোসহ নানা বিড়ম্বনা রোধে ই-ট্রাফিক সেবা অনেক বড় ভূমিকা পালন করবে। এ ব্যবস্থার মাধ্যমে জাল কাগজপত্র সনাক্ত ও গাড়ির কাগজপত্র সহজেই যাচাই বাছাই করা যাবে। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে বা অফিস-আদালত ঘুরে ভোগান্তির পরিবর্তে এই সেবার আওতায় ঘরে বসে যে কোনো ট্রাফিক মামলার সমাধান করতে পারবেন তারা। ট্রাফিক আইন মেনে যানবাহন চলাচলে আরও বেশি শৃঙ্খলা আসবে। ট্রাফিক পুলিশ তাদের কার্যক্রম আরও স্বচ্ছভাবে পালন করতে পারবে। পাশাপাশি চালকরাও বৈধ কাগজ-পত্র নিয়ে চলাচলে বাধ্য হবেন। এতে সড়ক দুর্ঘটনার হার অনেক কমে আসবে।

এসময় গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান ও ভাইস চেয়ারম্যান মাহতাব উদ্দিন প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে তিনি স্থানীয় আব্দুল আওয়াল কলেজের মাঠে আয়োজিত মাদক, নারী নির্যাতন ও জঙ্গীবাদ বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।