টার্মিনেটর ফ্র্যাঞ্চাইজির কথা মনে করলেই আর্নল্ড শোয়ার্জনেগারের দুর্দান্ত সব অ্যাকশন দৃশ্য চোখের সামনে ভেসে ওঠে। এই ফ্র্যাঞ্চাইজির সবচেয়ে বেশি অ্যাকশন নিয়ে আসছে জেমস ক্যামেরনের ‘টার্মিনেটর: ডার্ক ফেইট।  বিশ্বজুড়ে দর্শকদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয় টার্মিনেটর ফ্রাঞ্চাইজি সিনেমাগুলো। এই সিনেমার নায়ক চরিত্রের মধ্য দিয়ে আর্নল্ড শোয়ার্জনেগার তার ক্যারিয়ারে সাফল্যের চূড়ায় অবস্থান করেছেন। অবশ্য আগামী সিক্যুয়েলে মূল চরিত্রে থাকছেন না তিনি। এবার প্রধান চরিত্রে থাকছেন লিন্ডা হ্যামিলটন।

তবে দর্শকদের হতাশ হবার কিছু নেই। টার্মিনেটর সিক্যুয়েলে আর্নল্ড না থাকলে কি হয়! তিনি ক্ষণিকের জন্য উপস্থিত থাকবেন এই সিনেমায়। আর্নল্ড বলেন, কঠোর পরিশ্রম করো এবং নিষ্ঠার সঙ্গে খেলো। পুরো সিনেমাটি এই মূলনীতির ওপরেই দাঁড়িয়ে। বিখ্যাত সারাহ কনর চরিত্রে আবারও অভিনয় করবেন লিন্ডা হ্যামিল্টন। তিনি বলেন, এই সিনেমায় অ্যাকশন দৃশ্যগুলো দশগুণ বড়। এটা আসলে বলার ভাষা নেই।

এই সিনেমার প্রযোজক ও সহ-চিত্রনাট্যকার বিশ্বনন্দিত নির্মাতা জেমস ক্যামেরন বলেন, ‘আগের দুটি মূল টার্মিনেটরের চাইতে এটা আরও দীর্ঘ, আরও দারুণ। সংক্ষেপে বলতে গেলে, ‘এটি আর-রেটেড, এটি ভয়ানক, এটি বিস্ময়কর, এটি ক্ষিপ্র ও তীব্র। টিম মিলার পরিচালিত জেমস ক্যামেরনের ‘টার্মিনেটর: ডার্ক ফেইট’ সারা বিশ্বে ১ নভেম্বর মুক্তি পাওয়ার কথা।