পাবনার ঈশ্বরদীর মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান সেলিম হত্যাকান্ডে জড়িতদের গ্রেফতার ও দ্রুত বিচারের দাবীতে আজ সোমবার (২৯ জুলাই) ঈশ্বরদীতে সকাল ৬টা হতে ১২টা পর্যন্ত অর্ধদিবস হরতাল শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে। হরতাল চলাকালে শহরে বাস, ট্রাক, রিক্সা, অটো রিক্সা, সিএনজিসহ সড়ক যানসমূহ, ব্যাংক-বীমা এবং সকল দোকানপাঠ বন্ধ ছিল। শান্তিপূর্ণভাবে হরতাল চলাকালে যানবাহন, দোকানপাট বন্ধ ছিলো। কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। মুক্তিযোদ্ধা-জনতা ষ্টিয়ারিং কমিটির আহব্বানে এই হরতাল পালিত হয়।

হরতাল চলাকালে রেলগেট ট্রাফিক মোড়ে অনুষ্ঠিত পথসভায় বক্তব্য রাখেন, মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা চান্না মন্ডল, ফজলুর রহমান ফান্টু, হবিুবল ইসলাম হব্বুল, আব্দুল খালেক, সিরাজ উদ্দিন বিশ্বাস, পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইসাহক আলী মালিথা, প্রেসক্লাব সভাপতি স্বপন কুমার কুন্ডু, যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন প্রমূখ। এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান নূরুজ্জামান বিশ্বাস উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নায়েব আলী বিশ্বাসসহ মুক্তিযোদ্ধা, রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক ও বিপুল সংখ্যক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে গত ২৭ জুলাই পুলিশ হেড কোয়ার্টার থেকে প্রেরিত এক পত্রে বহুল আলোচিত মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলার তদন্ত ঈশ্বরদী থানা হতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) এর উপর ন্যস্ত করার নির্দেশনা দিয়েছে। ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাহাউদ্দিন ফারুকী এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
প্রসঙ্গত: চলতি বছরের গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাত আনুমানিক নয়টার দিকে মুক্তিযোদ্ধা ও পাকশীর আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম মোটরসাইকেল যোগে নিজ বাড়িতে ঢোকার সময় আঁততায়িদের গুলিতে আহত হয়ে ঈশ^রদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হওয়ার পর তিনি মারা যান।