রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার সাজেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত হয়েছে। নিহতের নাম সুমন চাকমা। সে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর সশস্ত্র গ্রুপের সদস্য। নিহত সুমন দেড় বছর আগে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শক্তিমান চাকমা হত্যা মামলার আসামি বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ছফিউল্লাহ জানান, শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে বাঘাইছড়ির সাজেক থানাধীন সীমানাছড়া এলাকার উজোবাজারে দুই দল সশস্ত্র সন্ত্রাসীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর টহলদল ওই এলাকায় যায়। এইসময় সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি করে। একটি গুলিতে গাড়ির কাঁচ এবং আরেকটি গুলিতে গাড়ির বডি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এসময় সেনা সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে সেখানে সুমন চাকমা ওরফে কসাই সুমন নামে এক যুবকের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

ইউপিডিএফ এর খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক অংগ্য মারমা জানান, নিহত সুমন আমাদের সাবেক কর্মী। তাকে বিনা কারণে, বিনা উস্কানিতে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। সে যদি কোনো অপরাধ করে থাকে তবে তার ন্যায়বিচার হবে। কিন্তু এইভাবে হত্যা করার কোনো অধিকার কারো নেই। এর আগে হত ১৮ আগস্ট রাঙামাটির আরেক উপজেলা রাজস্থলীর গাইন্দ্যা ইউনিয়নের পোয়াইথুপাড়া এলাকায় সেনাটহলে সশস্ত্র হামলায় এক সেনাসদস্য নিহত এবং ২ জন আহত হয়েছিল।