গাজীপুরে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) সক্রিয় সদস্যকে মাদ্রাসার দুই ছাত্রকে আটক করেছে র‌্যাব-১ এর সদস্যরা। এসময় তাদের কাছ থেকে উগ্রবাদী বই, ফেইসবুক উগ্রবাদী পোস্ট ও ট্যাব জব্দ করা হয়েছে। বৃহষ্পতিবার দুপুরে র‌্যাব-১’র স্পেশালাইজ কোম্পানী পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন এ তথ্য জানিয়েছেন।

আটককৃতরা হলো- সিরাজগঞ্জের সদর থানার ছোনগাছা উত্তরপাড়া এলাকার গাজী মোহাম্মদ মিজানুর রহমানের ছেলে মোঃ মারুফ বিল্লাহ (২০) এবং একই থানা এলাকার চরছোনগাছা গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে মোঃ মোতালেব হোসেন (২৫)। তারা সিরাজগঞ্জ জেলার সাতবাড়িয়া কওমি মাদ্রাসার ছাত্র।

র‌্যাব-১ এর ওই কোম্পানী কমান্ডার জানান, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের বড়দিন (২৫ ডিসেম্বর) এবং ‘থার্টি ফার্স্ট নাইট’এ (৩১ ডিসেম্বর রাত) নাশকতা ও আতংক সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর উদ্দেশ্যে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন এবিটি’র কতিপয় সক্রিয় সদস্য একত্রিত হয়েছে। এ গোপন সংবাদ পেয়ে ওই ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাাহ আল-মামুনের নেতৃত্বে র‌্যাব-১’র সদস্যরা বুধবার রাতে গাজীপুরের কালিয়াকৈর থানাধীন চন্দ্রা এলাকায় অভিযান চালিয়ে এবিটি’র সদস্য মারুফ বিল্লাহ ও মোতালেব হোসেনকে আটক করে। এসময় তাদের কাছ থেকে দু’টি উগ্রবাদী বই, ফেইসবুক উগ্রবাদী ২০টি পোস্ট ও একটি ট্যাব জব্দ করা হয়।

র‌্যাব কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল-মামুন আরো জানান, বাংলাদেশকে একটি অনিরাপদ এবং জঙ্গী রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্ব দরবারে পরিচিত করার উদ্দেশ্যে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড পরিচালনা করার প্রস্তুতি চালাচ্ছিল। এজন্য তারা বিভিন্ন সময় বেশকয়েকটি ফেসবুক গ্রুপ তৈরী করে প্রচার প্রচারণা চালাত ও জঙ্গি সদস্য সংগ্রহের কাজ করত এবং বিভিন্নস্থানে সভা ও ষড়যন্ত্র করছিল বলে জিজ্ঞাসাবাদকালে আটককৃতরা র‌্যাবকে জানিয়েছে। আটককৃতরা নিজেদেরকে গবেষক হিসেবে দাবী করেছে। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।