হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টার্মিনাল-৩ নির্মাণের কাজ পেয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার স্যামসাং গ্রুপের স্যামসাং কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ট্রেডিং (সিএন্ডটি) করপোরেশন। শনিবার (২৫ জানুয়ারি) স্যামসাং এর একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে। নতুন এই টার্মিনালের নির্মাণকাজে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে আনুমানিক ২১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা। এর মধ্যে পাঁচ হাজার কোটি টাকা যোগান দেবে বাংলাদেশ সরকার এবং বাকি অর্থ প্রদান করবে জাপানের আন্তর্জাতিক সহযোগিতা সংস্থা জাইকা। এই প্রকল্পের জন্য স্যামসাং সিএন্ডটি করপোরেশন ইতিমধ্যে পাঁচ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ পেয়েছে। প্রকল্পটি আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে শেষ হবে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

টার্মিনাল-৩ এর কাজ শেষ হলে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে প্রতি বছর গড়ে প্রায় দুই কোটি যাত্রী যাতায়াত করতে পারবেন। দুবাইয়ের বুর্জ খলিফা, কুয়ালালামপুরের পেট্রোনাস টুইন টাওয়ার, তাইপেই-১০১, সিঙ্গাপুরের চেঙ্গি বিমানবন্দরের টার্মিনাল-৪ এর মতো বেশকিছু প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে স্যামসাং গ্রুপের স্যামসাং কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ট্রেডিং (সিএন্ডটি) করপোরেশন।

বাংলাদেশে স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স গত ১০ বছর ধরে ব্যবসা করে আসছে। বাংলাদেশের বাজারের জন্য স্যামসাং স্মার্টফোন সংযোজন করা হয় নরসিংদীতে হাইটেক কারখানায়। স্যামসাংয়ের একটি গবেষণা ও উন্নয়ন কেন্দ্র আছে ঢাকায়।