গাজীপুরের শ্রীপুরে বুধবার বিকেলে এক স্পিনিং মিলে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। ফায়ার সার্ভিসের আটটি ইউনিটের কর্মীরা প্রায় সাড়ে ৪ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নেভাতে সক্ষম হয়। আগুনে কারখানার তুলা ও উৎপাদিত সুতাসহ মেশিনপত্র এবং বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে ও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারি পরিচালক মামুন অর রশিদ ও কারখানার ডেপুটি ম্যানেজার মো. আক্তারুজ্জামানসহ স্থানীয়রা জানান, শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের আবদার এলাকাস্থ জমজম স্পিনিং মিলের ব্লু-রুমের কাটিং সেকশনে বুধবার দুপুর সোয়া ২টার দিকে আগুনের সূত্রাপাত হয়। এসময় কারখানায় খাবারের বিরতি চলছিল। তুলা, সুতা ও সিলিংয়ের ডাষ্টের কারণে আগুন মুহুর্তেই পুরো টিনশেডের ওই কারখানায় ও গুদামে ছড়িয়ে পড়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করে নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়। শ্রমিকরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের শ্রীপুর, ভালুকা, ত্রিশাল, জয়দেবপুর, কালিয়াকৈর ও টঙ্গী ষ্টেশনের আটটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌছে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। কারখানা শেড ঘেঁষে সীমানা প্রাচীর থাকায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের বেগ পেতে হয়। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা প্রায় সাড়ে ঘন্টা চেষ্টার পর সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আগুন নেভাতে সক্ষম হন। তবে আগুন পুরোপুরি নেভাতে সন্ধ্যার পর পর্যন্ত ড্যাম্পিংয়ের কাজ করছিল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।

তারা জানান, আগুনে কারখানার তুলা ও উৎপাদিত সুতাসহ মেশিনপত্র এবং বিভিন্ন মালামাল পুড়ে গেছে ও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে তাৎক্ষণিকভাবে অগ্নিকান্ডের কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানা যায় নি। তবে কেউ হতাহত হয়নি। অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারসহ বিভিন্ন কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শণ করেছেন।