স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া সন্দেহে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর গানম্যানের (পুলিশের এএসআই) গুলিতে এক যুবক নিহত ও অপর একজন আহত হয়েছে। শুক্রবার দুপুরে ওই গানম্যান এএসআই কিশোর কুমার মন্ডলকে ঢাকার আশুলিয়া থানা এলাকা থেকে পিস্তল ও ৬রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করে গাজীপুরের পুলিশ।

নিহতের নাম শহিদুল ইসলাম শহিদ (৩৫)। সে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সীমান্তবর্তী টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর থানার আইজগানা কারিগরপাড়া এলাকার আব্দুস সবুরের ছেলে। আহতের নাম মহিন উদ্দিন (৩২)। সে কালিয়াকৈরের কুতুবদিয়া এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে।

কালিয়াকৈর থানার ওসি আলমগীর হোসেন মজুমদার ও স্থানীয়রা জানান, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আকম মোজাম্মেল হকের গানম্যানের দায়িত্বে রয়েছেন গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার চাপাইর ইউনিয়নের কুতুবদিয়া গ্রামের নারায়ণ কুমারের ছেলে পুলিশের এএসআই কিশোর কুমার মন্ডল। বন্ধু মহিন উদ্দিন ও শহিদের সঙ্গে কিশোর কুমার মাঝে মধ্যেই একত্রে আড্ডা দিত এবং মাদক সেবন করতো। বেশ কিছুদিন ধরে মহিন উদ্দিনের সঙ্গে স্ত্রীর পরকিয়া থাকার সন্দেহে কিশোরের সঙ্গে তার স্ত্রীর দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল। ওই কলহের জেরে সম্প্রতি ঢাকার বাসা থেকে বাপের বাড়ি চলে যান কিশোরের স্ত্রী। এতে কিশোর কুমার ক্ষিপ্ত হয় বলে প্রাথমিকভাবে তথ্য পাওয়া গেছে। এর জেরে মহিনকে হত্যার পরিকল্পনা করে কিশোর কুমার। মহিনকে হত্যার উদ্দেশ্যেই বৃহষ্পতিবার রাতে গাঁজা সেবন ও আড্ডা দেয়ার কথা বলে মোবাইল ফোনে তাকে স্থানীয় কুতুবদিয়া এলাকার লায়ন হাবিবের একটি পতিত জমিতে আসতে বলে কিশোর। রাতে কিশোরের জন্য বন্ধু শহিদকে নিয়ে মহিন ওই স্থানে গিয়ে অপেক্ষা করতে থাকে। রাত পৌণে ১০টার দিকে কিশোর কুমার একটি মোটরসাইকেল নিয়ে সেখানে আসে। এসময় কোন কিছু বুঝে ওঠার আগে নিজ পিস্তল দিয়ে এলোপাথারী গুলি শুরু করেন এএসআই কিশোর। এতে বুকের ডান পাশে একটি গুলিবিদ্ধ হয়ে শহিদ ঘটনাস্থলেই নিহত এবং পেটে দু’টি গুলিবিদ্ধ হয়ে মহিন উদ্দিন আহত হয়। গুলির শব্দ পেয়ে ঘটনাস্থলের দিকে স্থানীয়দের আসতে দেখে গানম্যান কিশোর পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী আহত মহিনকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে পুলিশ তাকে সেখান থেকে সাভারস্থ এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদি হয়ে শুক্রবার সকালে কিশোরের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেল শেখ জানান, শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকার আশুলিয়া থানার শিমুলিয়ার জিরানী এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে গাজীপুরের পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত পিস্তল ও ৬রাউন্ড গুলি জব্দ করা হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর গানম্যান হিসেবে নিয়োজিত এএসআই কিশোর কুমার ছুটিতে গ্রামের বাড়িতে এসে এ ঘটনা ঘটিয়েছেন। তাকে জ্ঞিাসাবাদ করা হচ্ছে।
এ ব্যাপারে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী গাজীপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আ ক ম মোজাম্মেল হক জানান, ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পিত ভাবে এ খুনের ঘটনা ঘটানো হয়েছে। অভিযুক্ত এএসআই কিশোর কুমারকে বরখাস্ত করে নতুন গানম্যান দেয়ার জন্য বলা হয়েছে।