লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে মানসিক ভারসাম্যহীন এক যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় অনেকের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। তবে ওই যুবকের পরিচয় এখনো পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি। শুক্রবার (১৭এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫ দিকে উপজেলার তুষভান্ডার-চাপারহাট আঞ্চলিক সড়কের এমসি মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, করোনা ভাইরাসের কারণে সরকারি নির্দেশনা মেনে ঘর থেকে বেশিরভাগ মানুষ বেরোচ্ছে না। গ্রামের মানুষও প্রয়োজন ছাড়া হাটবাজারে যাচ্ছেন না। কিন্তু শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৫ টার দিকে উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন এমসি মোড় এলাকায় রাস্তার পাশে এক যুবককে ছটফট করতে দেখা যায়।
স্থানীয় লোকজন মানসিক ভারসাম্যহীন অজ্ঞাত ওই যুবককে ছটফট করতে দেখে আতঙ্কিত হয়ে দুর থেকে চিৎকার চেচামেচি করতে থাকেন। অনেকেই দ্রুত ঘরে ফিরে যান।
এসময় স্থানীয়রা উপজেলা প্রশাসনকে খবর দিলে ঘন্টাখানেক পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ মেডিকেল টিম ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসান সেখানে উপস্থিত হন।
পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনায় আক্রান্ত রোগী উদ্ধারের মেডিকেল টিম মানসিক ভারসাম্যহীন ওই যুবককে উদ্ধার করে করোনা ইউনিটে ভর্তি করেন।
তবে প্রাথমিকভাবে স্থানীয়রা ধারণা করছেন, মানসিক ভারসাম্যহীন ওই যুবক সীমান্ত অতিক্রম করে ভারত থেকে আসতে পারেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জিয়াউল হোসেন জানান, মানসিক ভারসাম্য যুবককে আলাদাভাবে একটি ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে। পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে বোঝা যাবে তার শরীরে করোনা সংক্রমণ আছে কি না।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসান জানান, খবর পেয়ে দ্রুত মেডিকেল টিম ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ওই যুবককে উদ্ধার করা হয়। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ওই যুবকের পরিচয় এখনো পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি।