গাজীপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে ঘোষিত লকডাউন উপেক্ষা করে সামাজিক দুরত্ব না মানা, চা দোকানে বসে আড্ডা দেয়া এবং অহেতুক বাইরে ঘোরাঘুরি করার অপরাধে ১৪জনকে ১৭হাজার ৪শ’ টাকা জরিমানা এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

গাজীপুর জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম জানান, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঝুঁকি মোকাবেলায় ও জরুরী সুরক্ষার প্রয়োজনে গত ১১ এপ্রিল গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গাজীপুর জেলাকে লকডাউন (অবরুদ্ধ) ঘোষণা করা হয়। কিন্তু লকডাউন চলাকালে ওই ঘোষণাকে উপেক্ষা করে কিছু লোকজন সামাজিক দূরত্ব বিধি না মেনে অহেতুক সেলুন ও চা-পান সিগারেটের দোকানসহ বিভিন্ন দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছে এবং বাইরে ঘুরাফেরা করছে। এছাড়াও সরকারি নির্দেশ অমান্য করে বিভিন্ন দোকানপাট খোলা রাখছে অনেকেই। তদের অহেতুক ঘুরাফেরা ও দোকানপাট বন্ধ করতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। এ লক্ষ্যে শুক্রবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত গাজীপুর মহানগরীর টেকনগপাড়া, ভুরুলিয়, চান্দনা চৌরাস্তা, রেলগেইট, রাজবাড়ি মাঠ, হাড়িনাল ছায়াবিথী, কালী মন্দির গেইটসহ বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায় ছয়টি ভ্রাম্যমান আদালত। অভিযান পরিচালনাকালে ১৪জনের বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের সংক্রামক রোগ প্রতিরোধ নিয়ন্ত্রণ নির্মূল আইনে লকডাউন উপেক্ষা করে বাইরে ঘুরাঘুরি, আড্ডা দেওয়া এবং দোকানপাট খোলা রাখার অপরাধে মামলা এবং তাদেরকে ১৭হাজার ৪শ’টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।