মহিপুরে মানিকগঞ্জ ফেরত ট্রাকের ১০ যাত্রী ও ৩ স্টাফকে কোয়ারেন্টাইনে দিয়েছে মহিপুর থানা পুলিশ। শুক্রবার দুপুরের দিকে শেখ জামাল সেতুর টোল থেকে ট্রাকসহ তাদের আটক করে মনোহরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভবনে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রাখেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মহিপুর থানার এসআই মনির হোসেন শেখ কামাল সেতুর টোল এলাকায় ডিউটিরত অবস্থায় ছিলেন। এসময় তাবু দিয়ে আটকানো একটি ট্রাক দেখে তার সন্দেহ হয়। তিনি ট্রাকটি থামিয়ে তল্লাশি করে তাবুর মধ্য থেকে ১০ জন যাত্রী ও ৩ জন ট্রাক স্টাফকে আটক করেন। তাৎক্ষনিক বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে তাদের মনোহরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনে কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করেন। কোয়ারেন্টাইনকৃত ১০ যাত্রীর বাড়ি কলাপাড়ার বিভিন্ন গ্রামে। ট্রাক ড্রাইভারের বাড়ি মহিপুরে, বাকি এক হেলপারের বাড়ি আমতলী উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নে ও আরেক হেলপারের বাড়ি ভেদরগঞ্জ থানার ছত্তোরপুর গ্রামে।

মহিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা মানিকগঞ্জের দৌলদিয়া থেকে গ্রামের বাড়ি ফিরছিলেন বলে জানায়। তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের খাবারের ব্যবস্থা করা হবে।

কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চিনময় হাওলাদার জানান, এ বিষয়ে এখনও কোন খোজ খবর নেওয়া যায়নি। তবে মাঠ কর্মীদের পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু হাসনাত মো: শহিদুল হক বলেন, তাদের ১৪ দিন ওই প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তাদের প্রয়োজন মাফিক খাদ্য সহায়তা দেয়া হবে।

 

রাসেল কবির মুরাদ , কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি