আপনি যখন ঘরে বসে নরিাপদে টভি,িপত্রকিা কংিবা অনলাইনে নউিজে খবর দখেছনে বা পড়ছনে, সইে খবর সংগ্রহরে জন্য নজিরে জীবনরে ঝুঁকি নয়িে খবর সংগ্রহ করছনে সংবাদর্কমী গৌতম । এই খবর সংগ্রহ করতে গয়িে এ র্পযন্ত সারা বাংলাদশেে অনপক সংবাদর্কমী করোনায় আক্রান্ত । মহামারী করোনায় জীবনরে ঝুঁকি নয়িে মাঠে কাজ করে যাচ্ছনে ঠাকুরগাঁওয়রে সংবাদর্কমী গৌতম ।কন্তিু আক্ষপেরে বষিয় হলে এই সংবাদর্কমীর খােঁজ কউে রাখে না । যাদরে কলমরে লখোয় আজ অনকেইে বড় বড় নতো হয়ছেনে তারা কউে এ কলম সনৈকিদরে পাশে নইে । বরং বাসায় নরিাপদে রয়ছেনে বউ বাচ্চা নয়িে ।তনিি আরো বলনে,দনিদনি গাণতিকি হারে বাড়ছে করোনা ভাইরাসরে রোগ।ি সপ্তাহ তনিকে ধরে আমাদরে জনপ্রতনিধিি রাজনীতবিদি ও সমাজরে বত্তিশালীরা ত্রাণ বতিরণ করে যাচ্ছনে। কন্তিু যসেব জনপ্রতনিধিরিা এবং সমাজসবেকরা আজ ত্রান দচ্ছিনে তাদরেকে বছররে পর বছর জনগণরে সামনে জাতরি সামনে তুলে ধরছেে সাংবাদকিরা। বহু নতো আছনে যাদরে আজকরে অবস্থানরে জন্য প্রথম দাবদিার সাংবাদকিরা। তারা কন্তিু ত্রাণ বতিরণরে সময় সাংবাদকিদরে কথা বমোলুম ভুলে গছেনে।তনিি জনপ্রতনিধিরিে প্রতি আহ্বান জানয়িে বলনে,আজকরে ঠাকুরগাঁওয়রে জন প্রতনিধিি সমাজ সবেক বত্তিশালীদরে প্রতি অনুরোধ করে বলছি অসহায় সংবাূর্কমীর পাশে দাঁড়ান। আপনাদরে সহযোগতিার মানসকিতা থাকলে আমাকে বলুন আমি আপনাদরেকে অসহায় সংবাূর্কমীগনরে তালকিা দবেো। তবে এমন কাউকে তালকিা প্রণয়নরে দায়ত্বি দবিনে না যনিি ঝন্টু মন্টু র্কতৃক সাংবাদকিদরে জন্য প্রদত্ত ২০০ ত্রাণ সহায়তার প্যাকটে নজিরো মরেে দবিনে ২/৪ জনে মলি।ে

গৌতম চন্দ্র র্বমন
ঠাকুরগাঁও