গাজীপুরে দাম্পত্য কলহের জেরে এসিড নিক্ষেপ করে ঘুমন্ত এক গার্মেন্টস কর্মীর শরীর ঝলসে দিয়েছে তার স্বামী। এ ঘটনায় পুলিশ দ্বগ্ধ গার্মেন্টস কর্মীর স্বামীকে আটক করেছে। আটককৃতের নাম আব্দুল আলীম (৩০)। সে সিরাজগঞ্জের শাহাদাতপুর থানার চরদুবালী গ্রামের মোকসেদ মিয়ার ছেলে।

জিএমপি’র কোনবাড়ি থানার এসআই মাইকেল বণিক স্থানীয়রা জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের কোনাবাড়ি থানার বাইমাইল নওয়াব আলী মার্কেট এলাকাস্থিত জনৈক আমিরের বাড়িতে স্ত্রী ডালিমা খাতুন (২৫) ও একমাত্র সন্তান আঁখি খাতুনকে (৪) নিয়ে ভাড়া থাকেন আব্দুল আলীম। এ দম্পতি স্থানীয় পোশাক কারখানায় চাকুরী করেন। পারিবারিক নানা বিষয়াদি নিয়ে বেশকিছুদিন ধরে তাদের মাঝে দাম্পত্য কলহ চলে আসছিল। শুক্রবার রাতেও আলীম ও ডালিমার মাঝে বাকবিতন্ডা হয়। এর জের ধরে মধ্যরাতে আলীম তার ঘুমন্ত স্ত্রীর শরীরে এসিড ছুড়ে মারে। এতে ডালিমার বাম কাঁধ ও পিঠসহ শরীরের বিভিন্নস্থান দ্বগ্ধ হয়। স্থানীয়রা দ্বগ্ধ ডালিমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুল আলীমকে আটক করে। ডালিমা সিরাজগঞ্জের চরদুবালী গ্রামের সালাম প্রমাণিকের মেয়ে।