গাজীপুরে ‘অপ্পো’ মোবাইল ফোন কোম্পানির বিক্রয় কর্মী মেহেদী হাসান ওরফে তুহিনকে গলা কেটে খুন করার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবীতে মানবন্ধন ও সমাবেশ করেছে গাজীপুরে কর্মরত বিভিন্ন মোবাইল ফোন কোম্পানির কর্মীরা। রবিবার বেলা ১১টার দিকে শহরের জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ‘গাজীপুর মোবাইল এমপ্লয়ীজ এসোসিয়েশন’র উদ্যোগে প্রায় এক ঘন্টা ব্যাপী এ কর্মসূচি পালিত হয়। পরে তারা জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান করে। এসময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- রাকিব খান, মনির হোসেন, হাবিবুর রহমান, রাম কৃষ্ণ, মো লিমন, গোলাম রেজাউল, রফিকুল ইসলাম প্রমূখ। বক্তারা মেহেদী হাসান খুনের সুষ্ঠু তদন্ত ও জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে শাস্তি নিশ্চিত করার দাবী জানান।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার রাতে কোনাবাড়ির কর্মস্থল থেকে মজলিশপুরের বাসায় ফেরার পথে মহানগরীর নাওজোর এলাকায় মেহেদী হাসান ওরফে তুহিনকে গলা কেটে খুন করে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। নিহত মেহেদী গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বাসন থানাধীন মজলিশপুর কাজীপাড়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি কোনাবাড়ির রুনু সুপার মার্কেটের লোটাস টেলিকম নামের দোকানে ‘অপ্পো’ মোবাইল ফোন কোম্পানির বিক্রয় কর্মী (সেলস রিপ্রেজেন্টেটিভ) হিসেবে চাকুরী করতেন।