সরকারি চাকরিতে প্রবেশে কোটা পদ্ধতির সংস্কার চেয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) আন্দোলন করা শিক্ষার্থীদের ওপর টিয়ারশেল নিক্ষেপ ও লাঠিপেটার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় এক সাংবাদিকসহ দুজন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের আনসার ক্যাম্পসংলগ্ন রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উদ্দেশে রওনা দেন শিক্ষার্থীরা। পথে ক্যাম্পসংলগ্ন রাস্তায় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এ সময় দুই পক্ষে উত্তেজনা দেখা দিলে টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। এ ছাড়া কিছু শিক্ষার্থীকে লাঠিপেটা করে পুলিশ। এতে অনলাইন নিউজপোর্টাল বার্তাটোয়েন্টিফোরের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি অনন মজুমদারসহ দুজন আহত হন। তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশের টিয়ারশেল নিক্ষেপ ও লাঠিপেটার পর শিক্ষার্থীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর কাজী ওমর সিদ্দিকী সংবাদমাধ্যমকে বলেন, টিয়ারশেলে আহত এক সাংবাদিকসহ দুজনকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টার থেকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।