গাজীপুরে অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ ও ব্যবহারের দায়ে দুইজনকে কারাদন্ড ও নারীসহ ৮জনকে অর্থদন্ড করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ অভিযানকালে আদালত প্রায় আড়াই হাজার অবৈধ আবাসিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও গ্যাস লাইন অপসারন করে। গাজীপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিষা আহম্মেদ এর নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের রবিবার রাতে এ আদালত পরিচালিত হয়।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেড গাজীপুর আঞ্চলিক অফিসের ব্যবস্থাপক সুরুজ আলম জানান, গাজীপুর সদর উপজেলার মনিপুর ও তালতলী এলাকার অসাধু লোকজন বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠাণ ও বাসা বাড়ীতে অবৈধ লাইন সংযোগ দিয়ে বিপদজনকভাবে গ্যাস ব্যবহার করছে। এ গোপন সংবাদ পেয়ে গাজীপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনিষা আহম্মেদ এর নেতৃত্বে ও গাজীপুর (জোবিঅ-গাজীপুর) এর উদ্যোগে রবিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ওই এলাকার চারটি পয়েন্টে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানকালে আদালত অবৈধ গ্যাস লাইন স্থাপন করে অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদান করার দায়ে মূল হোতা স্থানীয় মো. হাফিজুর রহমানকে ৩০ দিন এবং মো. মাঈনুদ্দিনকে ৭ দিন করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এছাড়াও অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ ও ব্যবহারের দায়ে স্থানীয় মো. রুবেলকে ৩০ হাজার টাকা, খাদিজা আক্তারকে ৭ হাজার টাকা, মো. আলমাসকে ২ হাজার টাকা, মো. আরসাদকে ২ হাজার টাকা, মো. শাহাদাৎ খাঁকে ২ হাজার টাকা, মো. কামাল হোসেনকে ২০ হাজার টাকা, মো. রইচ উদ্দিনকে ৩০ হাজার টাকা এবং মো. শাহীন কাজীকে ১ লাখ টাকাসহ মোট ১ লাখ ৯৩ হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়।

অভিযানকালে প্রায় এক হাজার ২শ’টি বাসা বাড়ির ২ হাজার শ’টি অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন এবং অবৈধভাবে স্থাপিত ৬ কিলোমিটার পাইপ লাইনের সংযোগস্থলসহ একশ’মিটার গ্যাসের পাইপ লাইনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও অপসারণ করা হয়। এসময় চুলাসহ বিভিন্ন ব্যাসার্ধের পাইপ, রাইজার ও অবৈধ সংযোগে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়। অভিযান পরিচালনার খবর পেয়ে অবৈধ গ্যাস ব্যবহারকারীরা পালিয়ে যায়। স্থানীয় অসাধু চক্রের সদস্যরা বিভিন্ন বাসা বাড়ীর মালিকদের কাছ থেকে কয়েক লাখ টাকা নিয়ে রাতের আঁধারে এসব অবৈধ সংযোগ প্রদান করে।

অভিযানকালে গাজীপুর তিতাস গ্যাসের (জোবিঅ-গাজীপুর) ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সুরুজ আলম, উপব্যবস্থাপক প্রকৌশলী এস এম আবু সুফিয়ান ও প্রকৌ. মির্জা শাহনেওয়াজ লতিফ, সহকারী প্রকৌশলী কে.এইচ. ফয়সাল আহমেদ ও শেখ জানের নূরানী, উপ সহকারী প্রকৌশলী মজিবুর রহমান ও মোঃ সাবিনুর রহমান, রাজস্ব উপশাখার সহকারি কর্মকর্তা মো. আহম্মেদ উল্লাহ, মো.আব্দুর রাজ্জাক ও মো. ইকবাল হোসেন চৌধুরীসহ টেকনিক্যালটিম এবং পুলিশ ও আনসার ব্যাটলিয়নের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।