গাজীপুরে বিপুল পরিমাণ ফেন্সিডিলসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-১’র সদস্যরা। এসময় তাদের কাছ থেকে চারশ’ ৪০ বোতল ফেন্সিডিলসহ মোবাইল ফোন এবং মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি পিকআপ জব্দ করা হয়েছে। মঙ্গলবার র‌্যাব-১’র স্পেশালাইজ কোম্পানী পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন এ তথ্য জানিয়েছেন।

আটককৃতরা হলো- বগুড়া জেলা সদর থানার জয়পুরপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে মোঃ আব্দুল মতিন (৪০) ও জয়পুরহাট জেলা সদর থানার জামালগঞ্জ পুরাতন বাজার এলাকার মৃত স্বপন মিয়ার ছেলে মোঃ আলম হোসেন(৩৫)। মঙ্গলবার র‌্যাব-১’র অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ সারওয়ার-বিন-কাশেম এ তথ্য জানিয়েছেন।

র‌্যাব-১এর ওই কর্মকর্তা জানান, ভারতের বিভিন্ন চোরাই পথ দিয়ে আনা ফেন্সিডিলের একটি বড় চালান ক’মাদক ব্যবসায়ী পিকআপ যোগে গাজীপুরে নিয়ে যাচ্ছে। এ গোপন সংবাদ পেয়ে সোমবার দিবাগত রাতে র‌্যাব-১’র সদস্যরা গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বাসন থানাধীন যোগীতলা এলাকার ছোবাহান মেমোরিয়াল হাসপাতালের গেইটের সামনে সড়কের উপর অভিযান পরিচালনা করে। এসময় র‌্যাব সদস্যরা তল্লাশি চালিয়ে একটি পিকআপের কেবিনের প্লাটফর্মের নিচে ইঞ্জিনের উপর কৌশলে রক্ষিত ৪৪০ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ ২ টি মোবাইল ফোন এবং মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত পিকআপটি জব্দ করে। এ ঘটনায় জড়িত থাকায় ওই দুই মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।

র‌্যাব’র ওই কর্মকর্তা আরো জানান, গ্রেফতারকৃত সংঘবদ্ধ মাদক চোরাচালানকারী চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ ফেন্সিডিলসহ বিদেশী মাদক ভারত থেকে চোরাইপথে সীমান্তবর্তী এলাকা হতে আমদানি করে অবৈধভাবে নিজের হেফাজতে রেখে সেগুলো গাজীপুর ও ঢাকাসহ আশেপাশের জেলাসমূহের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি ও সরবরাহ করে আসছিল।